পাতা

কী সেবা কীভাবে পাবেন

ঋণ প্রদান প্রক্রীয়াঃ

সরকার কর্তৃক নির্ধারিত ১০% হার সরল সুদে ১৫ বৎসর মেয়াদে কুমিল্লা জেলায়  সর্বোচ্চ ৪০ লক্ষ টাকা, চাঁদপুর ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় সর্বোচ্চ ৩০ লক্ষ টাকা প্রদান করা হয় এবং উক্ত জেলা সমূহের আওতাধীন উপজেলা সদর সমূহে ২৫ লক্ষ টাকা ঋণ প্রদান করা হয়। এ ক্ষেত্রে ঋণ নিতে হলে সংশ্লিষ্ট প্লটের মূল দলিলসহ কমপক্ষে ২০ বৎসরের বায়াদলিল, সি.এস, এস. এ ও বি. এস খতিয়ানের জাবেদা নকলসহ খারিজী খতিয়ানের জাবেদা নকল অর্ডার শীট জমা দিতে হয়। তাছাড়া হালসনের খাজনা রশিদ ও আবেদনকারীর আয়ের স্বপক্ষে দালিলিক প্রমাণ দাখিল করতে হয়। অনুমোদিত নক্শার বি এস সি ইঞ্জিনিয়ার (সিভিল) কর্তৃক স্বাক্ষরিত ভারবহন সনদ দিতে হয়। ঋণের জন্য আবেদন ফি বাবদ প্রতি হাজারে ৩/- টাকা ও পরিদর্শন ফি বাবদ প্রতি হাজারে ৩/- টাকা করে  জমা দিতে হয়। ঋণ মঞ্জুরীর পর রেহেন দলিল সম্পাদনের রেজিষ্টেশন ফি ঋণ গ্রহিতা বহন করবে।

ঋণ আদায় প্রক্রীয়াঃ

সর্বশেষ চেক প্রদানের সময় সম্মানিত ঋণ গ্রহিতাকে মাসিক কিস্তি নির্ধারণ করে জানিয়ে দেয়া হয়। যদি নিয়মিত টাকা পরিশোধ না করে তাহলে তিন মাস পরই তাগিদ পত্র চূড়ান্ত নোটিশ, ব্যক্তিগত যোগাযোগ সহ অবশেষে কোর্টে মামলা দায়ের করে টাকা আদায়ের ব্যবস্থা নেয়া হয়।


Share with :

Facebook Twitter